Free Unlimited Hosting with cPanel

ফ্রি আনলিমিটেড হোস্টিং উইথ সি পেনেল 

এক কথায় বলতে গেলে ফ্রি আনলিমিটেড হোস্টিং বলতে বুঝায় সম্পূর্ণ ফ্রি তে অসংখ্য ডোমেইন, ব্যান্ডউইথ, এবং ওয়েবসাইট রাখার জায়গাকে। আবার যদি অন্য ভাবে বলি ফ্রি হোস্টিং হলো শেয়ার্ড হোস্টিং যা এক ই সার্ভার এ অনেকগুলো ওয়েবসাইট কে তথ্য রাখার জায়গা দেয়। কিছু হোস্টিং কোম্পানি দেয় ফ্রি আনলিমিটেড শেয়ার্ড হোস্টিং উইথ সিপ্যানেল আবার কিছু কোম্পনি দেয় নো এডস এর নিশ্চয়তা।   

সামান্য কিছু লিমিটেশন থাকলেও ফ্রি হোস্টিং নতুন ব্লগার দের জন্য ভালো। তবে অনেক গুলো অপশন এর মধ্যে যদি সবচেয়ে ভাল টি বাছাই করে নেয়া যায়, তবেই ফ্রি হোস্টিং টি চালানো যাবে নির্বিঘ্নে। মোট কথা, ফ্রি হোস্টিং নেয়ার আগে প্রতিটা হোস্টিং এর সুবিধা অসুবিধা যাচাই বাছাই করে নিয়ে, সবচেয়ে ভাল টি নিজের জন্য বাছাই করাটাই যুক্তিযুক্ত।

 

বেস্ট ফ্রি আনলিমিটেড ওয়েব সাইট হোস্টিং উইথ সি প্যানেল

সি পেনেল এর সাথে ফ্রি এবং আনলিমিটেড ওয়েব সাইট হোস্টিং রাখার সুযোগ দেয় বেশ কিছু কোম্পানি। এই হোস্টিং গুলো পেইড হোস্টিং এর অল্টারনেটিভ হিসেবে বেশ জনপ্রিয়। অতীতের  সাথে তুলনা করলে দেখা যায় আগের জনপ্রিয় ফ্রি হোস্টিং গুলো সি প্যানেল এর মালিকানা দিতো না। তবে ইদানিং তারা ফ্রি হোস্টিং এ ও সি প্যানেল ব্যবহারের সুবিধা দিচ্ছে। তো এই হোস্ট গুলো হলো:

US Free Host

২০২১ সালের শুরুতে US Free Host কোম্পানীটি যাত্রা শুরু করলেও এদের শুনাম অনেক ভাল। এরা একদম ফ্রিতে Domain + Hosting Service দিয়ে থাকে। এগুলা ৩য় পক্ষের কোম্পানী হলে অনেক ব্রান্ডভালু আছে। সুবিধাগুলোঃ

১। আনলিমিটেড ব্যান্ডউইথ এবং স্টোরেজ

২। একটি ডোমেইন এবং ১০০ টি মেইল এড্রেস

৩। এস এস এল, ক্লাউডফেয়ার সুবিধা

 

InfinityFree

InfinityFree, একদম ফ্রি, আনলিমিটেড ওয়েব হোস্টিং টির ইউজার এখন ৩০০০০০ এর ও বেশি। এটি স্পন্সর করেছে iFastNet কোম্পানি, যা প্রিমিয়াম হোস্টিং প্রোভাইড করে। তবে InfinityFree টি লাইফটাইম এর জন্য সম্পূর্ণ ফ্রি হোস্টিং প্রদান করসে। হোস্টিং টির আরো কিছু বৈশিষ্ঠ্য হলো:

    1. আনলিমিটেড ব্যান্ডউইথ এবং স্টোরেজ
    2. একটি সাবডোমেইন এবং ১০ টি মেইল এড্রেস
    3. এস এস এল, ক্লাউডফেয়ার সুবিধা

 

GoogieHost

২০১২ সালে তৈরী হওয়া এই হোস্টিং প্রোভইডারটি এখন ১০০০০০ ক্লাইন্ট কে সার্ভ করছে। ফ্রী হবার আগে কোম্পানিটি মাসে $1 চার্জ করলেও এখন নন প্রোফিট সংগঠন হিসেবে ফুল ফ্রি সার্ভিস প্রদান করছে। এর আরো কিছু সুবিধা হলঃ

      1. আনলিমিটেড ব্যান্ড উইথ ও ১জিবি ডিস্ক স্পেস
      2. একটি ওয়েবসাইট এবং আনলিমিটেড ফ্রি মেইল একাউন্ট
      3. এস এস ডি যুক্ত ক্লাউড সার্ভার

Bluehost

স্বনামধন্য Bluehost হোস্টিং কোম্পানি এর সবচেয়ে ভাল ফিচার হলো, এটি ইউসারদের দেয় কাস্টমাইজ সি পেনেল ইমপ্লিমেন্টের সুযোগ। সহজবোধ্য এই হোস্টিংটি ব্যবহার করে খুব দ্রুত, এবং মানসম্মত সাইট বানিয়ে নেয়া যায়। তবে Bluehost হোস্টিং টি পুরোপুরি ফ্রি নয়। খুব সামান্য খরচ করেই ব্যবহার করা যায় এই হোস্টিং সার্ভারটি। এর আরো কিছু বৈশিষ্ঠ হলো:

      1. কম খরচে হাই পার্ফমেন্স
      2. ফ্রি ডোমেইন আর  আনলিমিটেড স্টোরেজ
      3. ফ্রি উইবলি সাইট বিল্ডার

HostGator

HostGator হোস্টিং এ যে কোন সাইজের ফাইল এবং ডাটা ট্রান্সফার করা যায় লিমিট ছাড়াই। ছোট বিজনেস ওয়েবসাইট এর জন্য এই হোস্টিং প্রভাইডারটি খুব ভালো অপশন। এছড়াও এতে আছে আনলিমিটেড ওয়েবসাইট লঞ্চ করার সুযোগ। যদিও এই কোম্পানি টি সম্পূর্ন ফ্রি সার্ভিস দেয় না তবে এর খরচ হাতের নাগালেই। এর আরো কিছু সুবিধাদি হলো:

      1. আনলিমিটেড ডিস্ক স্পেস ও বেন্ড উইথ
      2. আনলিমিটেড মেইল  এবং ফ্রি এস এস এল
      3. ১ বছরের ফ্রি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন

ফ্রি আনলিমিটেড হোস্টিং উইথ সি পেনেল নো এডস

ওয়েব হোস্টিং এর অনেক অপশনের মধ্যে বেস্ট একটিকে বেছে নেয়া সত্যিই কনফিউশনের। ফ্রি অথবা পেইড যেকোন হোস্টং নেয়ার সময়ই এ নিয়ে স্বচ্ছ ধারনা থাকা দরকার। যেহেতু ফ্রি হোস্টিং লিখে সার্চ করলেই ই আমাদের সামনে আসে অনেকগুলো অপশন। তাই যাচাই-বাছাই করে বেস্ট টা বেছে নেয়াই যুক্তিসঙ্গত।

এক কথায় ফ্রি ওয়েব হোস্টিং হলো যেকোন ডোমেইন বা নাম রাখার জায়গাটা ফ্রি তে পাওয়া।  ফ্রি হোস্টিং প্রোভইডাররা একটি সম্পূর্ন ডিস্ক দিয়ে থাকে সাইট রাখার জন্য। ঠিক গো – ডেডির মতো হোস্টিং ই তারা প্রদান করে, তবে ফ্রি বলে কিছু না কিছু লিমিটেশন তো থেকেই যায়। যেমন একেটু স্লো, লিমিটেড স্পেস। কিছু কিছু হোস্টং এ থাকে এডস, তবে ফ্রি আনলিমিটেড হোস্টিং উইথ সি পেনেল নো এডস সাইট ও আছে। নিচে এরকম কিছু সাইটের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়া হলো। 

GbFreeHosting

পর্সোনাল এবং কমার্শিয়াল যেকোন ইউসের জন্য GbFreeHosting ভালো। এখানে নিজের কেনা ডোমেইন এড করা যায়। এছাড়া যেকোন ফ্রি সাব ডোমেইন ও এখানে এড করা যায়। যেকোন প্রজেক্টের জন্য ১০০০+ প্রফেশনাল টোমপ্লেট দেয় GbFreeHosting । তার সাথে আছে নো এডস সুবিধা। 

GoogieHost

ফ্রি ওয়েবহোস্টিং এর জন্য পার্ফেক্ট একটি হোস্টিং প্রোভাইডার হচ্ছে GoogieHost। নিউবি এবং শিক্ষার্থী দের জন্যই মুলত এই হোস্টিংটি দেয়া হয়। তারা ১০০ ওয়েব ডিজাইনার, শিক্ষার্থী, এবং ছোট ব্যবসায়ীদের জন্য নিয়ে এসেছে এই সার্ভিসটি।এর আরো কিছু বৈশিষ্ঠ্য হলো:

      1. সাইট ওনারদের জন্য সহজ সি প্যানেল।
      2. গুরুত্বপূর্ণ কাজ সহজে করার জন্য পাওয়ারফুল টুলস।
      3. সম্পূর্ণ ফ্রি হোস্টিং।
      4. নো এডস সুবিধা।
      5. আনলিমিটেড ডিস্ক স্পেস, বেনডউইথ।

2FreeHosting

2FreeHosting এর মতে ৫৯৫০০০+ ডোমেইন তাদের সার্ভারে হোস্ট করা হচ্ছে। এটা অন্য সব হোস্টিং প্রোভাইডারের মধ্যে সবচেয়ে ভালো সার্ভিস দিচ্ছে। সারা বিশ্বে ফ্রি হোস্টিং উইথ নো এডসের জন্য এই হোস্টিং কোম্পানি ইতোমধ্যেই খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

BlogSpot

কোন ধরনের এডস শো না করে সম্পূর্ণ ফ্রি ওয়েব হোস্টিং দেয়া সার্ভার হচ্ছে BlogSpot। কিন্তু এখানে শুধু সাব ডোমেইন নিয়েই কাজ করা যায়। যদি আপনি ব্লগার.কম থেকে  ডোমেইন নিতে চান, তবে এটি অনেক সহজে তৈরি করা যাবে। কিন্তু ডোমেইন গুলো দেখতে আনপ্রফেশনাল লাগবে। 

ব্লগার থেকে ডোমেইন নিয়ে ব্লগস্পটে ফ্রি হোস্টিং দিয়ে সুন্দর সাইট বানানো যায়, আর এটি সম্পূর্ন এড ফ্রি।

ফ্রি ওয়েব হোস্টিং উইথ আনলিমিটেড স্পেস এবং বেন্ড

Profreehost

ফ্রি ওয়েব হোস্টিং উইথ আনলিমিটেড স্পেস এবং বেন্ড এই সুবিধার জন্য সবচেয়ে ভাল হোস্টং প্রোভাইডার হচ্ছে Profreehost। এখানে শুধু একটি বা দুটি না বরং অনেকগুলো ডোমেইন এড করা যায়। এছাড়াও এর আরো কিছু সুবিধা হলো:

      1. ফ্রি ওয়েবসাইট বিল্ডার 
      2. সহজ কন্ট্রোল পেনেল

তবে আনলিমিটেড ডোমেইন এড করার আগে মাথায় রাখতে হবে যে, যত বেশি সাইট এখানে এড করা হবে ব্যান্ডউইথ এর ওপরেও ততটাই চাপ পরবে। তাই ৪-৫ টার বেশি ডোমেইন এড না করাটাই ভাল।

Free FTP hosting

Free FTP hosting টি মূলত একেক ধরনের বিশাল ডাটাবেজ সংরক্ষনের জন্য ব্যবহৃত হয়। ইন্টারনেটে একটি ওয়েব সাইট পাবলিশ করার জন্য এ ধরনের হোস্টিং রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এখান থেকে সরাসরি ওয়েব পেজ ডাউনলোড করার অপশন থাকে। এক সময়ে মাত্র একটি ওয়েব পেজ ডাউনলোড করা যায় বলে এতে কাজ হবে খুবই ধীর গতির ।

পার্সোনাল ইউসের জন্য Free FTP hosting টি  টাকা বাচাবে, তবে হ্যা, বড় ধরনের কিছু করার ইচ্ছা থাকলে এটি না ইউস করাই ভাল। 

কন্ডিশনাল ফ্রি হোস্টিং:

      1. আপনার ডোমেইনে এক্সট্রা একটা ট্যাগ লাগিয়ে দেয়ার শর্ত দিতে পারে। যেমন: ABC.blogger.com
      2. প্রায় সব ফ্রি হোস্টিং কোম্পানিই সাইটে ছোট বা মাঝারি সাইজের ব্যানার লাগানোর শর্ত দেয়। 
      3. অন্য কোন সার্ভার কোম্পানির প্রোডাক্ট সাইটে আনার সুযোগ দেয় না। 
      4. ফ্রি হোস্টিং একাউন্ট গুলো পিএইচ পি এর ফিচার গুলো পেইড করে রাখে।

ফ্রি হোস্টিং এর সুবিধা:

      1. ফ্রি ওয়েব হোস্টিং প্রধানত নতুন দের জন্যই তৈরী। যারা প্রথম ওয়েবসাইট লঞ্চ করার জন্য হোস্টিং খুজছে তারা ফ্রি তেই হোস্টিং নিয়ে প্র্যাকটিস শুরু করতে পারে। ধীরে ধীরে হোস্টিং এর ফ্রি ভার্সনে কমফোর্ট হলে তারপর পেইড হোস্টিং নিয়ে ব্যবহার তেমন কষ্টকর হবে না।
      2. একটি ওয়েবসাইট ডেভলপ করার জন্য যা যা ফিচার সম্পর্কে জানতে হয় তার সব কিছুই ফ্রি হোস্টিং এ থাকে।
      3. যেকোন অলাভজনক প্রতিষ্ঠানের জন্য ফ্রি হোস্টিং নিয়ে নির্ধিদ্বায় কাজ করা যায়। 
      4. সাধারনত ফ্রি হোস্টিং গুলো খুব ইউজার ফ্রেন্ডলি হয়। যা সহজেই এবং খুব অল্প সময়েই সাইট রেডি করে ফেলতে সহায়ক।

ফ্রি হোস্টিং এর অসুবিধা:

      1. প্রায় সব ফ্রি হোস্টিং কোম্পানি ই এডস দেয়, আপনি আপনার সাইটে ঢুকে যদি তাদের এড এ ক্লিক করেন তবে তারা এখান থেকে আয় করবে। 
      2. কাস্টমার সাপোর্ট দেয় নেই।
      3. আনলিমিটেড ব্যান্ড উইথ বা স্পেস বললেও সব ফ্রি হোস্টিং কোম্পানিতেই এগুলো লিমিটেড।
      4. আবার অনেক ফিচার এড করার জন্য আপগ্রেড ভার্সন নিতে হয়।

পরিশেষে

ছোট পরিসরে ব্লগিং করা বা প্র্যাকটিসের জন্য ফ্রি হোস্টিং উইথ সি প্যানেল নিয়ে কাজ করা ভাল। কিন্তু আপনি যদি সিরিয়াস ভাবে কাজ করতে চান তবে কিছু খরচ করে হলেও পেইড সল্যুশন টা নিয়ে নেয়া ভাল। দিনশেষে ফ্রি জিনিসে আপনি পেইড এর মতো সার্ভিস পাবেন না। মূলত আপনি কেমন সাইট বানাতে চান তার ওপর ই নির্ভর করবে আপনি ফ্রি হোস্টিং নিয়ে কাজ করবেন নাকি পেইড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *